জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা বিজ্ঞান অধ্যায়-১ part 1

সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর

প্রিয় শিক্ষার্থী, আজ বিজ্ঞান বিষয়ের অধ্যায়-১ থেকে সৃজনশীল পদ্ধতির একটি নমুনা প্রশ্নোত্তর আলোচনা করা হলো।

A        B           C

গোলক্রিমি  মানুষ         প্রজাপতি

. শ্রেণিবিন্যাস কাকে বলে?

. কুনোব্যাঙকে কেন উভচর প্রাণী বলা হয়?

. C প্রাণীটি কোন পর্বের? ব্যাখ্যা করো।

. A ও B প্রাণী দুটিকে ভিন্ন ভিন্ন পর্বে রাখার যৌক্তিকতা বিশ্লেষণ করো।

উত্তর

জীবের পারস্পরিক সম্পর্ক এবং চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের মিল ও অমিলের ভিত্তিতে বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে বিভিন্ন দল বা স্তর বা ধাপে পর্যায়ক্রমে সাজানো হয়। জীবজগেক ধাপে ধাপে বিন্যস্ত করার পদ্ধতিকে শ্রেণিবিন্যাস বলে।

উত্তর

মেরুদণ্ডী প্রাণীর মধ্যে যারা জীবনের প্রথম অবস্থায় সাধারণত পানিতে থাকে এবং মাছের মতো বিশেষ ফুলকার সাহায্যে শ্বাসকার্য চালায়, পরিণত অবস্থায় ডাঙায় বাস করে, তাদের উভচর প্রাণী বলে। কুনোব্যাঙ ব্যাঙাচি অবস্থায় পানিতে এবং পূর্ণাঙ্গ অবস্থায় ডাঙায় বাস করে। এ জন্য কুনোব্যাঙকে উভচর প্রাণী বলে।

উত্তর

C প্রাণীটি প্রজাপতি, যা আর্থ্রোপোডা (Arthropoda) পর্বের অন্তর্ভুক্ত। কারণ—

১. এ পর্বের প্রাণীদের দেহ খণ্ডায়িত ও সন্ধিযুক্ত উপাঙ্গ বিদ্যমান।

২. মাথায় একজোড়া পুঞ্জাক্ষি ও অ্যানটেনা থাকে।

৩. নরম দেহ কাইটিনসমৃদ্ধ শক্ত আবরণী দ্বারা আবৃত।

৪. এদের দেহের রক্তপূর্ণ গহ্বর হিমোসিল নামে পরিচিত।

উত্তর

A প্রাণীটি গোলক্রিমি এবং B প্রাণীটি মানুষ।

গোলক্রিমির দেহে নিম্নলিখিত বৈশিষ্ট্যগুলো দেখা যায়:

১. দেহ নলাকার, পুরু ত্বক দ্বারা আবৃত এবং দ্বিপার্শ্বীয় প্রতিসম।

২. পৌষ্টিক নালি সম্পূর্ণ (মুখছিদ্র ও পায়ুছিদ্র উভয়ই বিদ্যমান)।

৩. দেহগহ্বর অনাবৃত, প্রকৃত সিলোম নয়।

৪. সংবহনতন্ত্র ও শসনতন্ত্র অনুপস্থিত।

৫. সাধারণত এক লিঙ্গ।

উপরিউক্ত বৈশিষ্ট্যগুলোর কারণে A প্রাণীটিকে (গোলক্রিমি) Nematoda পর্বে রাখা হয়।

আবার, মানুষের নিম্নলিখিত বৈশিষ্ট্যগুলো দেখা যায়:

১. ভ্রূণাবস্থায় দেহের পৃষ্ঠদেশের মাঝ বরাবর একটি নরম, নমনীয়, দণ্ডাকার, দৃঢ়, অখণ্ডায়িত নটোকর্ড থাকে, যা মেরুদণ্ড দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয়।

২. পৃষ্ঠদেশে একক, মধ্যম, ফাঁপা স্নায়ুরজ্জু থাকে।

৩. মানুষের দেহ হালকা লোমে আবৃত। পায়ের তলা, হাতের তালু ও মুখমণ্ডল লোমবিহীন।

৪. রক্ত সংবহনতন্ত্র উন্নত ও বদ্ধ প্রকৃতির।

৫. বক্ষদেশে এক জোড়া স্তনগ্রন্থি (স্ত্রী-পুরুষ উভয় দেহে) রয়েছে, যা স্ত্রীদেহে কার্যকর এবং পুরুষে নিষ্ক্রিয় থাকে।

৬. মানুষের মস্তিষ্ক সুগঠিত এবং সর্ববৃহত্।

উপরিউক্ত বৈশিষ্ট্যগুলোর কারণে B প্রাণীটিকে (মানুষ) Chordata পর্বে রাখা হয়।

প্রভাষক রূপনগর মডেল স্কুল ও কলেজ, ঢাকা

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

Blog at WordPress.com.

Up ↑

%d bloggers like this: