জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা গার্হস্থ্য অর্থনীতি

*সৃজনশীল প্রশ্নোত্তর

প্রিয় শিক্ষার্থী, আজ গার্হস্থ্য অর্থনীতি বিষয়ের অধ্যায়ভিত্তিক সৃজনশীল পদ্ধতির নমুনা প্রশ্নোত্তর আলোচনা করা হলো।

আনিসা রহমান একজন গৃহিণী। তিনি সীমিত সম্পদ ব্যবহারের মাধ্যমে বিভিন্ন কাজ সম্পাদন করেন। প্রয়োজনে তিনি তাঁর পুরোনো শাড়ি দিয়ে ঘরের পর্দা, পাপোশ তৈরি করেন। আনিসা রহমান নিজস্ব প্রচেষ্টার মাধ্যমে তাঁর পরিবারের চাহিদা মেটান। পরিবারের সবাই তাঁর ওপর সন্তুষ্ট।

. কাজকে কী অনুযায়ী ভাগ করতে হয়?

. সম্পদের উপযোগ বলতে কী বোঝায়?

. আনিসা রহমানের কাজের মাধ্যমে সম্পদের কোন বৈশিষ্ট্যের প্রকাশ ঘটেছে? ব্যাখ্যা করো।

. গৃহ পরিচালনায় আনিসা রহমান বিভিন্ন প্রকার সম্পদ ব্যবহারে পারদর্শী কি না, মূল্যায়ন করো।

উত্তর

কাজকে পরিবারের সদস্যদের বয়স, দক্ষতা ও পছন্দ অনুযায়ী ভাগ করতে হয়।

উত্তর

সম্পদের প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো এর উপযোগ বা ব্যবহার-যোগ্যতা। উপযোগ হচ্ছে দ্রব্যের সেই গুণ, যা দ্বারা মানুষের চাহিদা পূরণ সম্ভব হয়। সব সম্পদেরই কমবেশি উপযোগিতা রয়েছে। শিক্ষা, বুদ্ধি, স্থান, সময়, আকারস্বত্ব ও সৃজনশীলতার ওপর উপযোগ নির্ভর করে। সম্পদের উপযোগিতা চারভাবে বৃদ্ধি করা যায়। যথা: ১. আকৃতির পরিবর্তন দ্বারা ২. সময়োপযোগী ব্যবহার দ্বারা ৩. স্থানান্তকরণ দ্বারা ৪. চাহিদা মেটানোর দ্বারা।

উত্তর

উদ্দীপকে বর্ণিত আনিসা রহমান তাঁর কাজের মাধ্যমে সম্পদের ব্যবহারের পরস্পর সম্পর্কযুক্ততা, নির্ভরশীলতা ও পরিবর্তনশীলতা বৈশিষ্ট্যটির প্রকাশ ঘটিয়েছেন।যেকোনো লক্ষ্য অর্জনের ক্ষেত্রে একক কোনো সম্পদের ব্যবহার না করে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে বিভিন্ন রকম সম্পদ একত্রে প্রয়োগ করা হয়। যেকোনো কাজ করতে গেলে অর্থ, সময়, শক্তি, দক্ষতা ইত্যাদি একাধিক সম্পদের প্রয়োজন হয়। যেমন: বাড়িতে ফল, শাকসবজির বাগান করতে অর্থের ব্যবহারের সঙ্গে সঙ্গে সময়, জ্ঞান ও শক্তিরও প্রয়োজন হয়।

উদ্দীপকে আনিসা রহমান সীমিত সম্পদ ব্যবহারের মাধ্যমে নিজস্ব প্রচেষ্টায় পরিবারের সদস্যদের চাহিদা মেটান। প্রয়োজনে তিনি তাঁর পুরোনো শাড়ি দিয়ে ঘরের পর্দা ও পাপোশ তৈরি করেন। আনিসা রহমান এখানে নিজস্ব মেধা, জ্ঞান ও সৃজনশীলতার সঙ্গে দক্ষতার সমন্বয় ঘটিয়েছেন। তিনি মানবীয় সম্পদের পরস্পর সমন্বয় ঘটিয়ে পরিবারের সদস্যদের চাহিদা পূরণে সক্ষম হয়েছেন।

উত্তর

গৃহ পরিচালনায় আনিসা রহমান বিভিন্ন প্রকার সম্পদ ব্যবহারে পারদর্শী। সম্পদ চাহিদা পূরণের হাতিয়ার। প্রতিটি পরিবারেই একাধিক সদস্য থাকেন এবং একাধিক সদস্যের মধ্যে একাধিক চাহিদা বিদ্যমান। প্রত্যেক সদস্যের সামর্থ্য অনুযায়ী সময়, জ্ঞান ও দক্ষতার যদি সুষ্ঠু ব্যবহার করা যায়, তবে পরিবারটি সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পরিচালিত হয়ে লক্ষ্য অর্জন করতে পারে।

পরিবারের সদস্যদের জ্ঞান, দক্ষতা, দৃষ্টিভঙ্গি, মনোভাব গৃহ পরিচালনায় গৃহিণীকে সহায়তা করে এবং বিভিন্ন ধরনের সম্পদের অপচয় হ্রাস করে। আনিসা রহমান তাঁর যোগ্যতাকে কাজে লাগিয়ে নিজস্ব প্রচেষ্টার মাধ্যমে পরিবারের চাহিদা মেটানোর চেষ্টা করেন। এভাবে তিনি তাঁর মানবীয় সম্পদ ব্যবহারের মাধ্যমে অর্থের সাশ্রয় করেন। গৃহ পরিচালনায় এই গুণাবলি ও দক্ষতার কারণে তাঁর ওপর সবাই সন্তুষ্ট।

সহকারী শিক্ষক আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ঢাকা

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

Blog at WordPress.com.

Up ↑

%d bloggers like this: